বাংলাদেশের তারকা ক্রিকেটার তামিম ইকবালকে নিয়ে গত কয়েকদিন ধরে বেশ আলোচনা চলছে। এই তারকা ক্রিকেটার গত কয়েকদিন আগে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে এসে লাইভে বলেন তিনি আসন্ন টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে খেলবেন না। তবে হঠাৎ করে এই তারকা ক্রিকেটার কি কারণে এমন সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা নিয়েই বেশ আলোচনা শুরু হয়। তবে তিনি দাবি করেন আসন্ন টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপের আগে তিনি তেমন প্রস্তুতি নিতে পারেননি। এছাড়া পারিবারিক সমস্যার কথাও বলেন। আর এই তারকা ক্রিকেটার দলের জন্য শুভকামনা জানিয়েছেন। তিনি বলেছেন বর্তমানে তরুণ ক্রিকেটারা ভালো করছেন তাদের দলে জায়গা দেওয়ার জন্য তিনি আসন্ন টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপ থেকে নিজের নাম সরিয়ে নিয়েছেন। এদিকে, এই তারকা ক্রিকেটারকে নিয়ে বর্তমানে অনেকে কথা বলছেন। তেমনি এবার তাকে নিয়ে কথা বলেছেন বিশিষ্ট ব্যক্তিত্ব ড. আসিফ নজরুল।

কেন নেই তামিম?
গরীবের ঘোড়া রোগ বলে একটা কথা আছে। বাংলাদেশের ক্রিকেট কর্তাদের মধ্যে এই রোগটা আছে। তারা মাঝেমাঝে এমন পরিস্থিতি তৈরী করে যাতে বেষ্ট খেলোয়াড়রা নিজে থেকে সরে দাড়ায়।
বাংলাদেশে দলে এমন ভালো খেলোয়াড় এখন আছেন চারজন: সাকিব, মুশফিক, তামিম, মাহমুদুল্লাহ। কিছুদিন আগেও ছিলেন মাশরাফি। এই পাচজনকে কোন কোন ফরমেটের ক্রিকেট দল থেকে বাদ দেয়া হয়েছিল অতীতে।
এবার টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ দলে তামিমকে এভাবেই বাদ দেয়ার পরিস্থিতি সৃষ্টি করা হলো। এই বিলাসিতা মানায় না বাংলাদেশকে।
আমি এর প্রতিবাদ জানাচ্ছি। লিটন ভালো ওপেনার, নাঈম শেখের সম্ভবনা আছে। কিন্তু সৌম্য এখন আর চাপ নিয়ে খেলতে পারেনা। সবচেয়ে বড় কথা টুর্নামেন্টে ভালো খেলার মানসিকতায় তামিমের ধারেকাছে নেই এদের কেউই। প্র্যকটিস নেই এই অজুহাতও তামিমের মতো এতো অভিজ্ঞ খেলোয়াড়ের বেলায় খাটে না।
তামিমের অনুপস্থিতিতে ভুগবে বাংলাদেশ। কিন্তু ক্রিকেট কর্তাকর্তাদের বোধহয় এসবে কিছু আসে যায় না। নিজেদের চোটপাট দেখানোর একটা প্রবণতা আছে তাদের মধ্যে।
মনে হচ্ছে এই চোটপাটের বলী হলো আমাদের প্রিয় তামিম ইকবাল। এবং বাংলাদেশের সম্ভাবনা।

উল্লেখ্য, দেশের তারকা ক্রিকেটার তামিম ইকবাল দীর্ঘদিন ধরে দলের বাইরে রয়েছেন। তবে এরপরও তিনি আসন্ন টি-টুয়েন্টি বিশ্বকাপে থাকলে দলের জন্য অনেক ভালো কিছু বয়ে আনতেন বলে মনে করেন ক্রিকেট প্রেমিরা। তিনি দলের হয়ে অসংখ্য ম্যাচে ভালো খেলেছেন। এমনকি এখন পর্যন্ত টি-টুয়েন্টি ক্রিকেটে তার রানের গর সব থেকে ভালো। বাংলাদেশের ইতিহাসে এখন পর্যন্ত তিনি সফল ওপেনার। আর তার দলে না থাকা সব থেকে কষ্টকর বলছেন ক্রিকেট প্রেমিরা।