গত কাল বাংলাদেশ ক্রিকেট অনেক বড় দুসংবাদ পেয়েছে। বিশ্বের অন্যতম সেরা অল-রাউন্ডার সাকিব আল হাসানকে সকল খেলা থেকে নিষেধাজ্ঞা দেয়া হয়েছে। এই সংবাদে দেশ ও দেশের বাইরে সবাই অবাক হয়েছেন। সাকিবের এই ঘটনা নিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তি নানা রকম কথা বলছেন। এবার সাকিবের বিষয়ে কথা বলেছেন নাট্য পরিচালক মোস্তফা মনন। তিনি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে স্ট্যাটাস দিয়েছেন। তার স্ট্যাটাসটি পাঠকদের জন্য তুলে ধরা হলো-
এখন একটি মৌলিক প্রশ্নে আসি। সাকিব কেনো নিষিদ্ধ হলো? জুয়াড়ির প্রস্তাব গ্রহণ করে নাই। এবং এই কথা আইসিসিকে জানায় নাই। এইটা সাকিবের ভুল এবং শাস্তি পেলো। এখন যে প্রস্তাব দিয়েছে? যার জন্য সাকিবের শাস্তি, তার কিছু হলো? সে কে? সেই জুয়াড়ি, ভারতের দীপক আগারওয়াল।

এখন আমাদের করণীয় কি? ভারতের ভেতর থেকে তাকে গ্রেফতার করে নিয়ে আসা। এছাড়া এ ঘটনার পেছনে ভারতের বড় কর্মকর্তার হাত আছে কি না, তাও দেখতে হবে। দীপক হলো কালো তালিকাভুক্ত জুয়াড়ি। এই লোকটা কোন উদ্দেশ্যে তার ফোন থেকে বার বার চেষ্টা করেছে। সে কি জানে না তার ফোন এবং তাকে ট্র্যাক করা হয়। তাহলে কি দাঁড়ায়? তার মানে জেনেশুনে সাকিবকে বিপদে ফেরাই তার মূল উদ্দেশ্য। ঘটনা হলো- বড় পরিকল্পনার অংশ আজকের এই ঘটনা। কারো কারো মূল উদ্দেশ্যই আমাদের বড় প্লেয়ারদের বিপদে ফেলা।
এখানে পাপন কিছুই না। সাকিবের ঘটনাটা এমন সময় আনলো, দোষ গেলো পাপনের উপর। পাপন সাহেবের যে ভুল নেই, তা না। বাঙলা সিনেমার শেষ দৃশ্য মনে আছে সবার। কাউকে শেষ করে পালিয়ে যায় অন্য কেউ, একজন এসে সেখানে হাজির হয়, আর পুলিশ এসে বলে ’ইউ আর আন্ডার অ্যারেস্ট’।

প্রতিবেশী, আমরাও নাটক বুঝি, নাটকের নেপথ্যের গল্প বুঝি, কিছু করতে পারি না। তার মানে এই না, কোনদিনও কিছু করতে পারবো না।

সাকিবের এই সংবাদ বের হওয়ার পর ক্রিকেট ভক্তসহ সকলে সাকিবের পাশে থাকার কথা বলছে। তার ওপর এই নিষেধাজ্ঞা মেনে পারছে না কোটি কোটি ক্রিকেয় ভক্তরা। অনেকে বলছেন, সাকিব বড় ধরনের ষড়যন্ত্রের শিকার হয়েছে। এবং সাকিবের সাথে অন্যায় করা হয়েছে। প্রত্যাহার করা হোক এই নিষেধাজ্ঞা।