দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে প্রায় সময় সংবাদ উঠে আসে যে কিছু আবাসিক হোটেলে নারীদের দ্বারা খারাপ কাজ করানো হয়। এই সকল অভিযোগ ওঠার পর সেই আবাসিক হোটেলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান পরিচালনা করে। আর এবার তেমনি একটি আবাসিক হোটেলের বিরুদ্ধে অভিযোগ ওঠার পর সেই আবাসিক হোটেলে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান চালায়। এ সময় দুইজন নারী সহ তিনজনকে গ্রেফতরা করেছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। তাদের বিরুদ্ধে অভিযোগ উঠেছে তারা ওই আবাসিক হোটেলে খারাপ কাজ করতো।

অ’সা’মা’জি’ক কার্যকলাপের দায়ে আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহারে আবাসিক হোটেলে অভিযান চালিয়েছে পুলিশ। শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালে এই অভিযান চালিয়ে মুন নামের একটি আবাসিক হোটেল থেকে দুই নারীসহ তিনজনকে গ্রেপ্তার করে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলেন, একজনের বাড়ি কুমিল্লা জেলার চান্দিনা উপজেলা সদরে, একজনের বাঘেরহাট জেলা সদরের দশআনি গ্রামে ও আরেকজন আদমদীঘি উপজেলার সান্তাহার স্টেশন কলোনীর বাসিন্দা।

আদমদীঘি থানার অফিসার ইনচার্জ জালাল উদ্দীন জানায়, সান্তাহার আবাসিক হোটেলে অনেকদিন যাবৎ অ’সামাজিক কাজ বন্ধ ছিল। শুক্রবার সকালে ফের অসামাজিক কাজ চলছে এমন সংবাদের ভিত্তিতে মুন হোটেলে অভিযান চালিয়ে দুই নারীসহ মোট তিন জনকে গ্রেপ্তার করে দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে।


উল্লেখ্য, দেশের বিভিন্ন স্থান থেকে কিছু আবাসিক হোটেল থেকে প্রায় সময় এমন অভিযোগ উঠে আসে। তবে এই সকল অভিযোগ উঠে আসলেই আইনশৃঙ্খলা বাহিনী অভিযান পরিচালনা করে। তেমনি ই অবাসিক হোটেল থেকে খারাপ কাজের অভিযোগ ওঠার পর আইনশৃঙ্খলা বাহিনী দুই নারী সহ তিনজনকে আটক করেছে। আটক করা ব্যক্তিদের আদালতে পাঠানো হয়েছে বলে জানা গেল।