ফারদিন হত্যাকাণ্ড : তদন্ত নিয়ে ভিন্ন তথ্য দিলেন ফারদিনের বাবা

সম্প্রতি বয়েট শিক্ষার্থী ফারদিনের ম/রদেহ নিখোঁজ হওয়ার তিন পরে নদীতে পাওয়া যায়। পরে চিকিৎসক তদন্তের পর জানান ফারদিনকে হ/ত্যা করা হয়েছে।হত্যাকাণ্ডের  ঘটনাটি সংবাদমাধ্যমে প্রকাশ হওয়া পর ব্যাপক চাঞ্চল্য সৃষ্টি হয়। হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় বান্ধবী বুশরাসহ অজ্ঞাদের নামে মামলা করেন ফারদিনের বাবা। তবে ঘটনার তদন্তের বিষয়টি নিয়ে অসন্তোষ প্রকাশ করে যা জানালেন ফারদিনের বাবা।

নি/হত বুয়েট ছাত্র ফারদিনের বাবা কাজী নূরউদ্দিন রানা বলেন, “আমার সন্তান ৫ তারিখে নিখোঁজ হয় এবং আমি ৬ তারিখে জিডি করি। পরবর্তী দুই দিন কি ত/দন্ত করা হয়েছিল আ/মরা জানি না।”

আইনের প্রতি আমার আস্থা থাকলেও তদন্ত প্রক্রিয়ায় আমি সন্তুষ্ট নই।

সোমবার (১৪ নভেম্বর) বাংলাদেশ প্রকৌশল বিশ্ববিদ্যালয়ের শহীদ মিনারে বুয়েটের শিক্ষার্থীদের মানববন্ধনে তিনি এ কথা বলেন।

বুয়েট শিক্ষার্থীর বাবা জানান, ফারদিন মা/দকাসক্ত ছিলেন না, ধূ/মপানও করতো না। যে ধূ/মপান করতে না সে কখনো ফেনসিডিলে আসক্ত হওয়ার কথা না। সে তার মা তা/কে যেটা কথাটা ব/লতো সে সেই ক/থা রাখতো। সে তার মাকে জানায় যে সে তার ক্লাস ও পরীক্ষা শেষ করে বাড়ি ফিরবে।

মানববন্ধনে বুয়েটের শিক্ষার্থীরা বলেন, হ/ত্যার বিচার না হওয়া পর্যন্ত ফারদিনের পরিবারের পাশে থাকবেন তারা। ফারদিন হ/ত্যার বিচার কার্যকর না হওয়া পর্যন্ত তারা মাঠে থাকবে।

সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষার্থীদের মুখপাত্র বলেন, নি/হত বুয়েট ছাত্র আবরার ফাহাদ কোনো ফেসবুক পেজ বা গ্রুপের অ্যা/ডমিন হিসেবে ছিলেন না ফারদিন।

প্রসঙ্গত, হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর তদন্ত তৎপরতা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন ফারদিনের বাবা। তিনি বলেন, ঘটনার তদন্ত যে ভাবে চলেছে সেটি আশানুরুপ নয়।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *