এবার চাঁদে জমি কিনলেন সিলেটের সুজন

পৃথিবীর মানুষ বর্তমানে অন্য গ্রহে গিয়ে বসবাস করার স্বপ্ন দেখছে। আর এ জন্য ইতিমধ্যে বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিক চাঁদে জমি কিনেছেন। এদিকে, বাংলাদেশের নাগরিকরাও চাঁদে জমি কেনা থেকে পিছিয়ে নেই। বাংলাদেশের কয়েকজন নাগরিক চাঁদে জমি কিনেছেন বলে দেশের গণমাধ্যমে সংবাদ প্রকাশ পেয়েছে। আর এবার সিলেটের এক ব্যক্তি চাঁদে জমি কিনেছেন বলে সংবাদ প্রকাশ পেয়েছে। এই ব্যক্তির নাম সুজন আহমদ। তিনি চাঁদে জমি কেনার সংবাদটি জানিয়েছেন। এই বিষয়ে তিনি নিজেই কথা বলেছেন।

চাঁদে জমি কিনছেন সিলেটের সুজন। সুজন আহমদের বাড়ী কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার পাড়ুয়া (বদিকোনা) গ্রামে। বর্তমানে আমেরিকার নিউজার্সির পেটার্সনে বসবাস করছেন তিনি।

গত সোমবার (২০ সেপ্টেম্বর) মার্কিন নাগরিক ডেনিস হোপের ‘লুনার অ্যাম্বাসি’ থেকে ৫৫ ডলারের বিনিময়ে এক একর জমি কিনেছেন সুজন আহমেদ। জমি কেনার পর একটি বিক্রয় চুক্তিনামা, কেনা জমির একটি স্যাটেলাইট ছবি এবং জমিটির ভৌগোলিক অবস্থান ও মৌজা-পর্চার মতো আইনি নথিও হস্তান্তর করেছে সংস্থাটি।

সুজন আহমেদ বলেন, মানুষ স্বপ্ন বিলাসী, এর ব্যতিক্রম আমিও নই। জানি না চাঁদে যাওয়া কতটা সহজতম হবে? নাই বা গেলাম। যেতে পারে আমার জেনারেশন অথবা তাদের জেনারেশন। বিজ্ঞানীরা সকল ধরনের চেষ্টা-প্রচেষ্টা করে যাচ্ছে চাঁদে মানব জাতীর বসবাসের জন্য। হয়তোবা একদিন তারা সফল হবে। আর সেই আশাতেই চাঁদে এ জমি কেনা।
উল্লেখ্য, চাঁদে জমি কেনার জন্য মার্কিন নাগরিক ডেনিস হোপের ‘লুনার অ্যাম্বাসি’-ই হলো সবচেয়ে জনপ্রিয় কোম্পানি। তাদের তথ্যানুযায়ী, চাঁদে জমির দাম প্রতি একর ২৪ দশমিক ৯৯ ডলার থেকে সর্বোচ্চ ৪৯৯ মার্কিন ডলার। বাংলাদেশি মুদ্রায় যা প্রায় ২ হাজার ১২৫ টাকা থেকে ৪২ হাজার ৪৩৭ টাকা। যদিও পৃথিবীর বাইরে চাঁদ ও মহাকাশের অন্য কোনো গ্রহ পুরো মানবজাতির সম্পদ। কোনো ব্যক্তি বা জাতি কিনতে পারেন না এটি। তবে কিছু কিছু ওয়েবসাইট উপহার দেওয়ার জন্য চাঁদে জমি বিক্রি করে থাকে সংস্থাটি। সার্টিফিকেটও দেয়া হয়।

এদিকে, বিশ্বের বেশ কয়েকটি দেশের নাগরিক ইতিমধ্যে চাঁদে জমি কিনে আলোচনায় এসেছেন। আর বাংলাদেশের কয়েকজন ব্যক্তি চাঁদে জমি কিনেছেন এমন সংবাদ ইতিমধ্যে প্রকাশ পেয়েছে। যে সকল ব্যক্তিরা চাঁদে জমি কিনেছেন তারা বর্তমানে সেখানে যাওয়ার স্বপ্ন দেখছে। তবে তার আদো যেতে পাড়বেন কিনা এমন প্রশ্ন থেকেই যায়। কিন্তু যারা চাঁদে জমি কিনেছেন তারা আশাবাদি যে তারা যদি নাও যেতে পাড়ে তাদের পরের প্রজন্ম বা তার পরের প্রজন্ম চাঁদে একদিন যাবে।

Leave a Comment

Your email address will not be published. Required fields are marked *