বর্তমান সময়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটে অনেক বড় সমস্যা দেখা দিয়েছে। সাকিব আল হাসান এক বছরের জন্য সকল খেলা থেকে নিষিদ্ধ হয়েছেন। সারা বিশ্বে সাকিবের নিষেধাজ্ঞার বিষয় নিয়ে ব্যাপক হইচই পরে গেছে। সাকিবকে সকল খেলা থেকে নিষিদ্ধ করা নিয়ে বিভিন্ন ব্যক্তি নানা রকম কথা বলছেন। এবার সাকিবকে নিয়ে কথা বলেছেন বাংলাদেশ ক্রিকেটের একসময়কার সেরা তারকা মোহাম্মদ আশরাফুল।
প্রায়ই কথায় কথায় বলা হয়, ’তোমার সঙ্গে হলে বুঝতে কেমন লাগে!’ বেশিরভাগ ক্ষেত্রেই কথাটি সত্য হলেও, অন্তত সাকিব আল হাসানের শাস্তির ব্যাপারে মোহাম্মদ আশরাফুলকে এমন কিছু বলার সুযোগ নেই।

মোহাম্মদ আশরাফুল বেশ ভালোভাবেই জানেন সাকিবের ভেতর দিয়ে এখন কী যাচ্ছে, তার মানসিক অবস্থাই বা কেমন। আর এ কথা নিজ মুখেই জানিয়েছেন আশরাফুল। জনপ্রিয় ক্রিকেটভিত্তিক ওয়েবসাইট ইসপিএন ক্রিকইনফোকে দেয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, ’সাকিব এখন কীসবের মধ্য দিয়ে যাচ্ছে, তা ভাষায় বর্ণনা করা কঠিন। আমি মনে করি এখন এ বিষয়ে সাকিবকে জড়িয়ে খুব বেশি খবর প্রকাশিত না হওয়াই ভালো। কারণ আমি জানি এসব খবর কতোটা প্রভাব ফেলে।’

তবে আশরাফুল এটিও বলে দিয়েছেন সাকিবের শাস্তির অপরাধের সঙ্গে তার অপরাধের কোনো মিল নেই। কেননা আশরাফুল যেখানে সরাসরি ফিক্সিং করে পাঁচ বছর নিষিদ্ধ ছিলেন, সেখানে জুয়ারির প্রস্তাব গোপন রেখে শাস্তি পেয়েছেন সাকিব। তাই দুটিকে ভিন্ন ভিন্ন ঘটনা হিসেবেই উল্লেখ করেন আশরাফুল।

তিনি বলেন, ’আমাদের ঘটনা কিন্তু আলাদা। সে জুয়ারিদের প্রস্তাব দেয়ার কথা কর্তৃপক্ষকে জানায়নি। আর আমি ম্যাচ ফিক্সিংয়ের সঙ্গে পুরোপুরি জড়িত ছিলাম। তবে এটা আমাদের সিস্টেমের জন্যই একটা বড় ধাক্কা। আমরা ক্রিকেট খেলতে ভালোবাসি।’

এসময় নিজের নিষেধাজ্ঞায় থাকা সময়ের স্মৃতিচারণ করেন আশরাফুল। জানান সবকিছু থেকে দূরে থাকতে দিনের বেলা ঘুমাতেন তিনি। তবে যখন পেয়েছেন আশার আলো, তখন নতুন করে দেখতে শুরু করেন ক্রিকেটে ফেরার স্বপ্ন।

আশরাফুল বলেন, প্রথম ছয় মাস আমি ঘুমিয়েই কাটিয়ে দিয়েছিলাম।
এরপর আমি সারা রাত টিভি দেখতাম, পরদিন ঘুম থেকে উঠতাম দুপুরে। তারপর আমি হজ্ব করে আসলাম। এর মাধ্যমে আমার বাড়তি সাহস জোগায়। আমি সবসময় ভাবতে থাকতাম যে আমি কি আর ক্রিকেটে ফিরতে পারব। এর কারণ যিকো আমার বয়স তখন ত্রিশ ছিলো।

তিনি আরও জানান, সাকিবকে ক্রিকেট বোর্ড সাহায্য করছে। আমিও হয়তো সমর্থন পেয়েছিলাম তবে তার সাথে সাকিবের বিষয়টা একদম মিলবে না। তাছাড়া মাশরাফি বিন মর্তুজার কথাও আমাদের মাথায় রাখতে হবে। সে বারবার ইনজুরিতে পড়েও আবার পুরো দমে মাঠে ফিরেছে। আর প্রতিবার দুর্দান্ত প্রত্যাবর্তনের অতীত উদাহরণ সাকিবের তো রয়েছেই।

তবে সাকিবের নিষেধাজ্ঞা মেনে নিতে পারছেন না কোটি কোটি ক্রিকেট ভক্তরা। অনেকেই বলছেন সাকিবের সাথে অন্যায় করা হয়েছে। সে ষড়যন্ত্রর শিকার হয়েছেন। কোটি কোটি ক্রিকেট ভক্তরা আশা করেন সাকিব নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে আবার ফিরে আসবে।