বাংলাদেশের বিশিষ্ট ব্যক্তি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রায় সময়ে দেশের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বক্তব্য দেন। তিনি দেশের ক্ষমতাসীন দলের সম্পর্কে বক্তব্য দেন। এছাড়া ভারতের বিষয়েও প্রায় সময় নানা রকম কথা বলেন। আর এবার এই বিশিষ্ট ব্যক্তি দেশের নানা বিষয়ে কথা বলেছেন। এ সময় তিনি সরকার ও বিরোধি দলের সম্পর্কে কথা বলেছেন।
বাংলাদেশকে দখল করা ছাড়াই ভারতের সিকিম রাজ্যে পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, ’আমাদের সংগ্রাম অব্যাহত করা ছাড়া মুক্তির উপায় নাই। বাংলাদেশের গণতন্ত্র না আসার একমাত্র কারণ আওয়ামী লীগ নয়, বিরোধী দলও সমভাবে দায়ী।’

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর তোপখানায় শিশু কল্যাণ মিলনায়তনে বাংলাদেশ লেবারপার্টি আয়োজিত ফেলানী হত্যা দিবসে সীমান্ত আগ্রাসন বিরোধী কনভেনশনে তিনি এসব বলেন।

২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারের চৌধুরীহাট সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) গু’’লি’’তে নি’’হ’’ত হন বাংলাদেশি কিশোরী ফেলানি।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ’ফেলানী হ’’ত্যা দিবস আমাদের নিজেদের স্বার্থে দুটি কাজ করতে হবে। দুটা ভাস্কর্য করতে হবে। একটা কুড়িগ্রামের সীমান্তে, যেখানে তাকে হ’’ত্যা করা হয়েছে। আর একটা বাংলাদেশে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের সামনের রাস্তায়।’

এছাড়া তিনি আরও অনেক বিষয়ে বক্তব্য দেন। তিনি ভোটের বিষয়েও বক্তব্য দেন। আর এমপি হাজি সেলিম পুত্রের বিষয়েও তিনি কথা বলেন। আর তিনি বলেন পুলিশ এক কথা বলছে অপর দিকে র‍্যাব অন্য কথা বলছে।
বাংলাদেশকে দখল করা ছাড়াই ভারতের সিকিম রাজ্যে পরিণত হবে: ডা. জাফরুল্লাহ
Logo
Print

জাতীয়

 

বাংলাদেশের বিশিষ্ট ব্যক্তি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী প্রায় সময়ে দেশের বিভিন্ন বিষয় নিয়ে বক্তব্য দেন। তিনি দেশের ক্ষমতাসীন দলের সম্পর্কে বক্তব্য দেন। এছাড়া ভারতের বিষয়েও প্রায় সময় নানা রকম কথা বলেন। আর এবার এই বিশিষ্ট ব্যক্তি দেশের নানা বিষয়ে কথা বলেছেন। এ সময় তিনি সরকার ও বিরোধি দলের সম্পর্কে কথা বলেছেন।
বাংলাদেশকে দখল করা ছাড়াই ভারতের সিকিম রাজ্যে পরিণত হবে বলে মন্তব্য করেছেন গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরী। তিনি বলেছেন, ’আমাদের সংগ্রাম অব্যাহত করা ছাড়া মুক্তির উপায় নাই। বাংলাদেশের গণতন্ত্র না আসার একমাত্র কারণ আওয়ামী লীগ নয়, বিরোধী দলও সমভাবে দায়ী।’

আজ বৃহস্পতিবার রাজধানীর তোপখানায় শিশু কল্যাণ মিলনায়তনে বাংলাদেশ লেবারপার্টি আয়োজিত ফেলানী হত্যা দিবসে সীমান্ত আগ্রাসন বিরোধী কনভেনশনে তিনি এসব বলেন।

২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কোচবিহারের চৌধুরীহাট সীমান্তে ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী বর্ডার সিকিউরিটি ফোর্সের (বিএসএফ) গু’’লি’’তে নি’’হ’’ত হন বাংলাদেশি কিশোরী ফেলানি।

ডা. জাফরুল্লাহ বলেন, ’ফেলানী হ’’ত্যা দিবস আমাদের নিজেদের স্বার্থে দুটি কাজ করতে হবে। দুটা ভাস্কর্য করতে হবে। একটা কুড়িগ্রামের সীমান্তে, যেখানে তাকে হ’’ত্যা করা হয়েছে। আর একটা বাংলাদেশে অবস্থিত ভারতীয় দূতাবাসের সামনের রাস্তায়।’

এছাড়া তিনি আরও অনেক বিষয়ে বক্তব্য দেন। তিনি ভোটের বিষয়েও বক্তব্য দেন। আর এমপি হাজি সেলিম পুত্রের বিষয়েও তিনি কথা বলেন। আর তিনি বলেন পুলিশ এক কথা বলছে অপর দিকে র‍্যাব অন্য কথা বলছে।
Template Design © Joomla Templates | GavickPro. All rights reserved.