দীর্ঘদিন আড়ালে থেকে এপ্রিলে সন্তান কোলে টেলিভিশন লাইভে আসেন অপু। সেখানে শাকিবের সাথে প্রেম বিয়ে সন্তান নিয়ে সব গুমোর ফাস করে নাটকীয়তার জন্ম দেয়। শাকিব খান এ নিয়ে শুরুতে বিভিন্ন রকম কথা বললেও পরে তাদের মধ্যে মিটমাট হয়ে যায়।
তার মাস দুয়েকের ব্যবধানে দু’জনের দূরত্ব বাড়তে থাকে। পুত্র জয়ের জন্মদিনের অনুষ্ঠানের আমন্ত্রণপত্রে শাকিব খানের ছবি না থাকা ও অনুষ্ঠানে শাকিবের অনুপস্থিতির কারণে দু’জনের বিচ্ছেদের গুঞ্জন রটে। এরপর গত ডিসেম্বরে তালাকনামা পাঠানোর মধ্য দিয়েই সব গুঞ্জনের পরিসমাপ্তি ঘটে।

এদিকে অপু শাকিবকে তালাকের শুনানির জন্য সিটি কর্পোরেশন ১৫ জানুয়ারি তাদের ডেকেছেন। কিন্তু অপু কখনই তালাক চাননি। তাই শুনানিতে তার অংশ না নেয়ার কোনো কারণ নেই। কিন্তু শাকিব কী আসবেন?

অন্যদিকে এখনও সংসারে ফিরতে মরিয়া অপু। একমাত্র পুত্র আব্রাম খান জয়ের জন্য হলেও তাদের সংসার করাটা জরুরি বলে মনে করেন বগুড়ার এ মেয়ে। তিনি বলেন, "জয়ের জন্য আমি মৃত্যু মেনে নিতে পারি। জয়ের ভবিষ্যৎ ভেবেই আমি এ ডিভোর্স মানি না। একটা ব্রোকেন ফ্যামিলির বাচ্চা হয়ে জয় বেড়ে উঠুক, আমি এটা চাই না। বিষয়টি সমাধানের জন্য সর্বোচ্চ চেষ্টা করে যাব।"

বিচ্ছেদকে ঘিরে কাদা ছোঁড়াছুঁড়ির পরও শাকিবের প্রতি তার কোনও আক্ষেপ নেই বলে জানালেন অপু। তার ভাষ্যে, "শাকিবকে এখনও আমি সেই প্রথম দিনের মতোই ভালোবাসি।