বিশ্বের বিভিন্ন দেশে অনৈতিক সম্পর্কের ঘটনা দিন দিন বেড়েই চলেছে। এমনকি কিছু খারাপ লোক সুযোগ পেলেই নারীদের উপর ঝাপিয়ে পড়ে। আর এই সকল অনৈতিক সম্পর্কের কারণে অনেক সময় নারীদের জীবন চলে যায়। আর এবার এক বিমানবালার সাথে ঘটে গেল সব থেকে বড় দু’র্ঘ’ট’না। এই বিমান বিমানবালার সাথে ১১ জন অনৈতিক সম্পর্ক করে বলে সংবাদ উঠে এসেছে। আর একটা সময় তাকে শেষ করা হয়।

মাকাতি সিটির হোটেলের খালি বাথটব থেকে ফিলিপিন্সের বিউটি কুইন এবং বিমানবালা ক্রিস্টিন অ্যাঞ্জেলিকা ডেসেরার ম/র/দে/হ উদ্ধার করা হয়েছে। সেখানে ২৩ বছর বয়সী ডেসেরা এবং তার বন্ধুরা নতুন বছর উদযাপন করছিলেন।

ডেসেরার মৃ//ত্যু ঘিরে নানা প্রশ্ন উঁকি দিচ্ছে। পুলিশের তথ্য বলছে, পার্টিতে তাকে ধ/র্ষ/ণে/র পর হ//ত্যা করা হয়েছে।

ডেসেরার এক বন্ধু হোটেল রুমে অন্য পুরুষদের আমন্ত্রণ জানায়। সে একাই ছিল তাদের সঙ্গে।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, ডেসেরাকে বাথটবে দেখতে পান তারা। তার গায়ের উপরে একটি চাদর দেওয়া ছিল। কিছুক্ষণ পর তারা দেখেন তার চেহারা বেগুনি হয়ে উঠছে। কোনো সাড়া শব্দ নেই তার। তারপর তাকে জাগানোর চেষ্টা করেন, কিন্তু ব্যর্থ হন।

মেডিকেলের প্রথম প্রতিবেদনে বলা হয়, ম/স্তি/ষ্কে র/ক্ত/ক্ষ/র/ণে তার মৃ//ত্যু হয়েছে।

তবে পুলিশ বলেছে, ডেসেরার বিশেষ অ/ঙ্গে বী//র্য পাওয়া গেছে। হোটেলের সিসিটিভি ক্যামেরার ভিডিও দেখে ১১ জনকে শনাক্ত করা হয়। ওই ১১ জন তার ওপর খারাপ কাজ করে থাকতে পারে বলেও জানায় পুলিশ।

মাকাতি সিটির পুলিশ সুপার জানান, হোটেল রুমে তিনজন ছিলেন যারা ডেসেরার বন্ধু। তাদের গ্রেফতারে অভিযান চলছে। আটক বাকি আটজনকে আদালতের মুখোমুখি করার প্রক্রিয়া চলছে বলেও জানান তিনি।

এদিকে, এই ঘটনার পর দেশটিতে ব্যাপক আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়েছে। তবে এই ঘটনা আরও ভালো ভাবে খতিয়ে দেখছে দেশটির আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। আর সিসি ক্যামেরায় যাদের ধরা পড়েছে তাদের গ্রেফতার করার চেষ্টা চলছে। আর বাকি যাদের গ্রেফতার করা হয়েছে তাদের কাছে নানা বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।