উন্নত দেশগুলির দিকে তাকালে দেখতে পাই তারা কোন কাজকে ছোট মনে করেন না। তারা মূলত নিজের কাজ বা যে কোন কাজ করতে পছন্দ করেন। আমাদের দেশে যেমন কম টাকার বেতনের চাকরিকে ছোট কাজ হিসেবে দেখা হয় বা অনেকে করতে অপমান বোধ করে ঠিক সে সকল কাজ উন্নত দেশগুলির মানুষেরা নির্দ্বিধায় করে থাকেন। এবার দেখা গেল বিশ্বের একটি উন্নত দেশের পার্লামেন্টের সদস্য হয়েও রেস্টুরেন্টের টেবিল পরিষ্কার করা থেকে থালা-বাসন ধোয়াসহ যাবতীয় কাজ করছেন। তার নাম আলেক্সান্দ্রিয়া ওকাসিও কোর্তেজ। বেশ কিছু দিন আগে থেকেই রেস্টুরেন্টে কাজ করতেন তিনি। এমনকি মার্কিন কংগ্রেসওম্যান নির্বাচত হওয়ার পরও তিনি সেই কাজ ছাড়েননি। এই খবর পাওয়া গেছে নিউইয়র্ক টাইমসএ।
২৯ বছর বয়সী আলেক্সান্দ্রিয়া বলেন, ’আমি জানুয়ারিতে কংগ্রেসে যোগ দেয়ার পর ওয়াশিংটন ডিসিতে চলে যাই। কিন্তু এখন আবার নিউইয়র্কে এসে কাজে যোগ দিয়েছি। এখানে আমাকে প্রতি ঘণ্টা কাজের জন্য মাত্র ২ ডলার দেয়া হয়। আমি চাই আমার মতো নিম্ন আয়ের মানুষ কতটা কষ্ট করে জীবন-যাপন করে তার প্রতি সবার মনোযোগ আকর্ষণ হোক।’

প্রসঙ্গত, আলেক্সান্দ্রিয়া মার্কিন কংগ্রেসের সবচেয়ে কম বয়সী প্রতিনিধি। গত নভেম্বরে তিনি আমেরিকার ১২৯তম কংগ্রেসের নির্বাচিত সদস্য হন।

মার্কিন গণমাধ্যম নিউ ইয়র্ক টাইমসকে গত নভেম্বরে এক সাক্ষাৎকারে ওকাসিও বলেন, টাকার অভাবে বাসা ভাড়া নিতে পারছেন না। ওকাসিও এর মাধ্যমে সকলের মাঝে আলোচনায় এসেছিলেন। এমনকি
সংসদের বেতন না পাওয়া পর্যন্ত ওয়াশিংটন ডিসিতে একটা অ্যাপার্টমেন্ট ভাড়া নেয়ার সেই সক্ষমতা তার ছিলো না। তিনি ১৯৮৯ সালের ১৩ অক্টোবর জন্মগ্রহণ করেন। আমেরিকার বোস্টন বিশ্ববিদ্যালয় থেকে স্নাতক সম্পন্ন করেছেন এই মার্কিন নারী।

তার বাবা ২০০৮ সালে ৪৮ বছর বয়সে মারা যান। এরপর তিনি
বিভিন্ন রেস্টুরেন্টে কাজ করেন। তিনি জানান, একসময় আমাকে দিনে প্রায় ১৮ ঘণ্টা করে কাজ করতে হয়েছে।