’আমি কিন্তু একদম মন খুলেই কথা বলব’ আড্ডা শুরু হওয়ার আগেই সুচন্দ্রা বলেছিলেন, এবং সেই কথাই রাখলেন তিনি। ঠোঁটের কোণের স্মিত এক হাসি রেখেই, শুরু হলো কথপোকথন।


http://www.natunsomoy.com/media/PhotoGallery/2017April/Suchandra-Vaaniya_BG20170613051200.jpg

গোটা সাক্ষাৎকারেই লাগল সে কোন ’প্রাউড ফিল্মিস্টার’ নয়, লাগল একজন ’গার্ল নেক্স্ট ডোর’। সুচন্দ্রার প্রথম থেকেই ইচ্ছে ছিল অভিনয়ের কিন্তু যখন জার্নিটা শুরু হয় তখন অনেক দায়িত্বও চলে আসে তার সঙ্গে সঙ্গে, ভালো অভিনেত্রীর দায়িত্ব। ছোটবেলায় নায়িকাই হতে চেয়েছিলেন। তার বাবা ছবি তুলতেন, সেই ফোটোশ্যুটের মডেল হতেন, কিন্তু বড় হয়ে বুঝলেন না নায়িকা নয় হতে হবে অভিনেত্রী।

পরিচালক হন্সল মেহতাকে নিয়ে কত গল্পই না করলেন তিনি। বলিউডে শুরুটা সহজ ছিল, সে রকমই সঠিক জায়গায় কানেক্ট করাটাও ইম্পর্ট্যান্ট কথায় উঠে আসল এ রকম অভিমতও। এটাও বলে দিলেন যে হন্সলের আসন্ন ছবি ’সিমরান’এর ৮০ শতাংশ দেখে ফেলেছেন তিনি।

এক সময় বলেছিলেন সিনেমার জন্য সব পারেন৷ এই প্রসঙ্গে বলেন, আন্ডারস্ট্যান্ডিংটা সবেতেই দরকার কিন্তু সেটা কফি খেয়ে করবে না বিছানায় শুয়ে সেটা সম্পূর্ণ তোমার ওপর নির্ভর করছে। এই কথা যখন বলছেন নায়িকা এতটুকুও জড়তা দেখা যায়নি গলায়, বেশ সাবলীল ছিলেন কথায়। এও বললেন সার্ভাইভ করার জন্য যেটা করার তাইই করা উচিৎ। প্রেম প্রসঙ্গে বললেন সুচন্দ্রা প্রেম করতে ভালোবাসেন।

প্রিয় অভিনেতা উত্তম কুমার, অভিনেত্রী প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, প্রিয় পরিচালক দুইজন কৌশিক গঙ্গোপাধ্যায় আর বলিতে হন্সল মেহেতা। অপুর সংসার সুচন্দ্রার প্রিয় ছবি। কাজ করার ইচ্ছে রয়েছে ইরফান খান, নওয়াজ ও ঋত্বিক চক্রবর্তীর সঙ্গে। অপর্ণা সেনের এক ছবিতে ঋত্বিকের শেয়ার করেছেন স্ক্রিন তবুও যেম মন ভরেনি সুচন্দ্রার। জিৎকে দেখতে ভালো দেবের সঙ্গে ডেটিং। সালমানের প্রেমে বারবার প্রেমে পড়তে পারেন পাঁচ বছর বাদে আরো একটু পসিটিভিটিলি এগোব বললেন নায়িকা৷