ভারতীয় বাংলা সিনেমার একজন জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। এই গুণী পরিচালকের সিনেমায় অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রী কাজ করতে চায়। তবে গত কয়েকদিন ধরে এই পরিচালকের সিনেমায় নতুন নায়িকার জন্য বাংলাদেশের পরীমনি কথা উঠে আসে। তবে এবার জানা গেল এই সিনেমায় এই নাইকাকে নেওয়া হচ্ছে না। আর এবার এই পরিচালকের সিনেমায় উঠে এসেছে বাংলাদেশের পরিচিত দুইজন নায়িকার নাম। তবে এখনো সবকিছু ঠিক হয়নি। তবে বাংলাদেশি নায়িকাদের নিয়ে ভারতের মিডিয়া মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
ভারতীয় ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম ’হইচই’র ব্যানারে ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করবেন কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। বাংলাদেশের লেখক নাজিম উদ্দিনের ’রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেননি’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হবে ওয়েব সিরিজ। এখানে নায়িকা থাকবেন ঢালিউডের পরীমনি।গেল ৬ জুলাই এমনই একটি খবর প্রকাশ করে ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা। খবরটি দুই বাংলাতেই বেশ আলোচনার জন্ম দেয়। সেখানে বলা হয় উপন্যাসটির কেন্দ্রীয় চরিত্র মুশকান জুবেরীর ভূমিকায় অভিনয় করবেন পরী। অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করবেন চঞ্চল চৌধুরী, মোশারফ করিম এবং কলকাতার অনির্বাণ ভট্টাচার্য। এদিকে, আনন্দবাজারের দেয়া তথ্যগুলো মিথ্যে বলে দাবি করেছে ’রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেননি’ উপন্যাসটির কপিরাইট কেনা কলকাতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টিভিওয়ালা মিডিয়া। তারা বলছে, ওয়েব সিরিজটি নিয়ে সম্প্রতি যে খবর প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে তা বেশিরভাগই সত্য নয়। এখন পর্যন্ত সবকিছুই প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। এই মুহূর্তে কোনো প্রকার তথ্যসুত্র ছাড়াই শিল্পীদের তালিকা প্রকাশের যে খবর প্রচারিত হয়েছে তা অবাক করার মতোই।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টিভিওয়ালা মিডিয়ার এক শীর্ষ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, লেখক নাজিম উদ্দিনের কাছ থেকে কপিরাইট কেনার পর সৃজিত মুখার্জি এটি নিয়ে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। তিনিই সিরিজটি করছেন, এটা সত্য। বর্তমানে সিরিজটির চিত্রনাট্যের কাজও চলছে। লকডাউনের মধ্যেই জুম কলে আমরা এই সিরিজটি নিয়ে একাধিক মিটিং করেছি। হইচই’কেও আমরা বেশ বড় বাজেটের একটি প্রস্তাব দিয়েছি ওয়েব সিরিজটির জন্য। সেখান থেকে এখনো কোনো সবুজ সংকেত পাইনি। এর চেয়ে নতুন কোনো তথ্য বা আপডেট নেই।টিভিওয়ালা মিডিয়ার ভাষ্য, বাংলাদেশের পরীমনি সিরিজটির নায়িকা হচ্ছেন বলে যে খবর আনন্দবাজার ছড়িয়েছে সেটা তো কাউকে না কাউকে নিশ্চিত করতে হবে। তাদের কাছে কোন তথ্য থাকলে সেটা যে কাউকে দিয়ে নিশ্চিত করে প্রকাশ করা উচিত ছিলো। কলকাতার গণমাধ্যম হয়েও তারা কলকাতার প্রতিষ্ঠান থেকে কারো বক্তব্য নিতে পারলো না এটা তো বেশ চিন্তার। তাদের গ্রহণযোগ্যতার কারণে হয়তো মিথ্যে সংবাদটিকে সবাই গুরুত্ব দিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু আমার যতদূর মনে পড়ে, প্রাথমিকভাবে ৪ জনকে নিয়ে একটা তালিকা করেছিলাম আমরা। সেখানে বাংলাদেশের জয়া আহসান ও পূর্ণিমা রয়েছেন। আরও দুইজন আছেন। তাদের নাম এখনই বলতে চাইছি না। চূড়ান্ত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে। তবে এ তালিকায় পরীমনি ছিলেন না টিভিওয়ালা মিডিয়ার শীর্ষ কর্মকর্তা আরও জানিয়েছেন, ’দেখুন পরীমানি নায়িকা হতে পারবেন না বা অন্যরা থাকছেন ব্যাপারটি এমন নয়। যেহেতু কোন কিছুই চূড়ান্ত না তাই সেটা শতভাগ নিশ্চিত না হয়ে প্রকাশ না করাই ভালো। খবর প্রকাশের পর যদি কেউ বাদ পড়েন সেটা তার জন্য খুবই খারাপ দেখায়। আর এখনই এই সিরিজের কাজ শুরু হচ্ছে না। এটি শুরু করতে করতে এ বছর চলে যাবে। সৃজিত খুব ব্যস্ত। আমাদেরও গুছানোর অনেক কাজ আছে।’
পরীমনি ছাড়াও চঞ্চল চৌধুরী, মোশারফ করিম এবং অনির্বাণ ভট্টাচার্যসহ বিভিন্ন সংবাদে যাদের নামই প্রকাশিত হয়েছে তারা কেউই এখনই চূড়ান্ত নয়।

এদিকে, এই পরিচালকের সাথে কাজ করতে চায় অনেকে তবে অনেক সময় ভারতীয় মিডিয়া অগ্রিম সংবাদ প্রকাশ করে যা অভিনেতা-অভিনেত্রীদেরকে ভিভান্তিতে ফেলে। এদিকে, এই পরিচালকের কাছের লোক বলেন এমন সংবাদ প্রকাশ না করারই ভালো। কারণ কোনো সিরিজে যদি কারো নাম বাদ পরে যায় তবে তবে দেখতে খারাপ দেখায়। তবে এবার বাংলাদেশের আরও দুইজন নায়িকার নাম আলোচনা দেখা দিয়েছে।
সৃজিতের নায়িকা হওয়ার আলোচনায় জয়া-পূর্ণিমা, পরীমনি নয়
Logo
Print

বিনোদন

 

ভারতীয় বাংলা সিনেমার একজন জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। এই গুণী পরিচালকের সিনেমায় অনেক অভিনেতা-অভিনেত্রী কাজ করতে চায়। তবে গত কয়েকদিন ধরে এই পরিচালকের সিনেমায় নতুন নায়িকার জন্য বাংলাদেশের পরীমনি কথা উঠে আসে। তবে এবার জানা গেল এই সিনেমায় এই নাইকাকে নেওয়া হচ্ছে না। আর এবার এই পরিচালকের সিনেমায় উঠে এসেছে বাংলাদেশের পরিচিত দুইজন নায়িকার নাম। তবে এখনো সবকিছু ঠিক হয়নি। তবে বাংলাদেশি নায়িকাদের নিয়ে ভারতের মিডিয়া মিথ্যাচার করছে বলে অভিযোগ উঠেছে।
ভারতীয় ভিডিও স্ট্রিমিং প্লাটফর্ম ’হইচই’র ব্যানারে ওয়েব সিরিজ নির্মাণ করবেন কলকাতার জনপ্রিয় পরিচালক সৃজিত মুখার্জি। বাংলাদেশের লেখক নাজিম উদ্দিনের ’রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেননি’ উপন্যাস অবলম্বনে নির্মিত হবে ওয়েব সিরিজ। এখানে নায়িকা থাকবেন ঢালিউডের পরীমনি।গেল ৬ জুলাই এমনই একটি খবর প্রকাশ করে ভারতের আনন্দবাজার পত্রিকা। খবরটি দুই বাংলাতেই বেশ আলোচনার জন্ম দেয়। সেখানে বলা হয় উপন্যাসটির কেন্দ্রীয় চরিত্র মুশকান জুবেরীর ভূমিকায় অভিনয় করবেন পরী। অন্যান্য চরিত্রে অভিনয় করবেন চঞ্চল চৌধুরী, মোশারফ করিম এবং কলকাতার অনির্বাণ ভট্টাচার্য। এদিকে, আনন্দবাজারের দেয়া তথ্যগুলো মিথ্যে বলে দাবি করেছে ’রবীন্দ্রনাথ এখানে কখনো খেতে আসেননি’ উপন্যাসটির কপিরাইট কেনা কলকাতার প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান টিভিওয়ালা মিডিয়া। তারা বলছে, ওয়েব সিরিজটি নিয়ে সম্প্রতি যে খবর প্রকাশিত হয়েছে বিভিন্ন গণমাধ্যমে তা বেশিরভাগই সত্য নয়। এখন পর্যন্ত সবকিছুই প্রাথমিক পর্যায়ে রয়েছে। এই মুহূর্তে কোনো প্রকার তথ্যসুত্র ছাড়াই শিল্পীদের তালিকা প্রকাশের যে খবর প্রচারিত হয়েছে তা অবাক করার মতোই।নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক টিভিওয়ালা মিডিয়ার এক শীর্ষ কর্মকর্তা গণমাধ্যমকে জানান, লেখক নাজিম উদ্দিনের কাছ থেকে কপিরাইট কেনার পর সৃজিত মুখার্জি এটি নিয়ে কাজ করতে আগ্রহ প্রকাশ করেন। তিনিই সিরিজটি করছেন, এটা সত্য। বর্তমানে সিরিজটির চিত্রনাট্যের কাজও চলছে। লকডাউনের মধ্যেই জুম কলে আমরা এই সিরিজটি নিয়ে একাধিক মিটিং করেছি। হইচই’কেও আমরা বেশ বড় বাজেটের একটি প্রস্তাব দিয়েছি ওয়েব সিরিজটির জন্য। সেখান থেকে এখনো কোনো সবুজ সংকেত পাইনি। এর চেয়ে নতুন কোনো তথ্য বা আপডেট নেই।টিভিওয়ালা মিডিয়ার ভাষ্য, বাংলাদেশের পরীমনি সিরিজটির নায়িকা হচ্ছেন বলে যে খবর আনন্দবাজার ছড়িয়েছে সেটা তো কাউকে না কাউকে নিশ্চিত করতে হবে। তাদের কাছে কোন তথ্য থাকলে সেটা যে কাউকে দিয়ে নিশ্চিত করে প্রকাশ করা উচিত ছিলো। কলকাতার গণমাধ্যম হয়েও তারা কলকাতার প্রতিষ্ঠান থেকে কারো বক্তব্য নিতে পারলো না এটা তো বেশ চিন্তার। তাদের গ্রহণযোগ্যতার কারণে হয়তো মিথ্যে সংবাদটিকে সবাই গুরুত্ব দিয়ে ফেলেছেন। কিন্তু আমার যতদূর মনে পড়ে, প্রাথমিকভাবে ৪ জনকে নিয়ে একটা তালিকা করেছিলাম আমরা। সেখানে বাংলাদেশের জয়া আহসান ও পূর্ণিমা রয়েছেন। আরও দুইজন আছেন। তাদের নাম এখনই বলতে চাইছি না। চূড়ান্ত হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করতেই হবে। তবে এ তালিকায় পরীমনি ছিলেন না টিভিওয়ালা মিডিয়ার শীর্ষ কর্মকর্তা আরও জানিয়েছেন, ’দেখুন পরীমানি নায়িকা হতে পারবেন না বা অন্যরা থাকছেন ব্যাপারটি এমন নয়। যেহেতু কোন কিছুই চূড়ান্ত না তাই সেটা শতভাগ নিশ্চিত না হয়ে প্রকাশ না করাই ভালো। খবর প্রকাশের পর যদি কেউ বাদ পড়েন সেটা তার জন্য খুবই খারাপ দেখায়। আর এখনই এই সিরিজের কাজ শুরু হচ্ছে না। এটি শুরু করতে করতে এ বছর চলে যাবে। সৃজিত খুব ব্যস্ত। আমাদেরও গুছানোর অনেক কাজ আছে।’
পরীমনি ছাড়াও চঞ্চল চৌধুরী, মোশারফ করিম এবং অনির্বাণ ভট্টাচার্যসহ বিভিন্ন সংবাদে যাদের নামই প্রকাশিত হয়েছে তারা কেউই এখনই চূড়ান্ত নয়।

এদিকে, এই পরিচালকের সাথে কাজ করতে চায় অনেকে তবে অনেক সময় ভারতীয় মিডিয়া অগ্রিম সংবাদ প্রকাশ করে যা অভিনেতা-অভিনেত্রীদেরকে ভিভান্তিতে ফেলে। এদিকে, এই পরিচালকের কাছের লোক বলেন এমন সংবাদ প্রকাশ না করারই ভালো। কারণ কোনো সিরিজে যদি কারো নাম বাদ পরে যায় তবে তবে দেখতে খারাপ দেখায়। তবে এবার বাংলাদেশের আরও দুইজন নায়িকার নাম আলোচনা দেখা দিয়েছে।
Template Design © Joomla Templates | GavickPro. All rights reserved.