দেশের বিভিন্ন স্থানে প্রায় সময় দেখা যায় রাজনৈতিক কারণে এক দলের সাথে অন্য দলের নানা রকম বিরোধ হয়ে থাকে। এমনকি অনেক সময় এক দলের লোক অন্য দলের সাথে যুক্ত হন। তবে এবার ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত একজন চেয়ারম্যান নির্বাচিত হয়েছেন। তিনি নির্বাচনে বিজয়ী হওয়ার পর তাকে নিয়ে বেশ আলোচনা দেখা দিয়েছে। এমনকি তার বিরুদ্ধে প্রতিবাদ ও সংবাদ সম্মেলন করা হয়েছে ওই এলাকায়।

নোয়াখালীর বেগমগঞ্জ উপজেলার নরোত্তমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটি ভেঙে দিয়ে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ বাচ্চুকে আহ্বায়ক করে নতুন কমিটি ঘোষণা করা হয়েছে। এ ঘটনার প্রতিবাদে বিগত কমিটির সদস্যরা সংবাদ সম্মেলন ও প্রতিবাদ সভা করেছেন।
মঙ্গলবার (১০ নভেম্বর) সন্ধ্যায় উপজেলার পন্ডিতবাজারে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কার্যালয়ে এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়।
সভায় বক্তব্য দেন বিগত কমিটির সভাপতি আমির হোসেন আবুল বাসার, সহ-সভাপতি মিজানুর রহমান খোকন, সাধারণ সম্পাদক মোহাম্মদ উল্যাহ সেলিম প্রমুখ।
বক্তারা বলেন, বিগত ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনে ধানের শীষ প্রতীক নিয়ে নির্বাচিত ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ বাচ্চু ব্যালট বাক্স ছি’/ন/তা/ই ও নানা অনিয়মের সাথে যুক্ত থাকা মামলার আসামি। তিনি হাইব্রিড আওয়ামী লীগ। বিতর্কিত জামায়াত-বিএনপির লোকজনকে নিয়ে আওয়ামী লীগের আহ্বায়ক কমিটি গঠন করেছেন তিনি। উক্ত আহ্বায়ক কমিটিকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করে দ্রুত তা বাতিলের দাবি জানান বক্তারা।
প্রসঙ্গত, গত ৭ নভেম্বর নরোত্তমপুর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কমিটি ভে’ঙে দিয়ে ইউপি চেয়ারম্যান হারুনুর রশিদ বাচ্চুকে আহ্বায়ক করে ২১ সদস্য বিশিষ্ট নতুন কমিটি গঠন করে উপজেলা আওয়ামী লীগ।

এদিকে, এই বিষয় নিয়ে বর্তমানে ওই এলাকার রাজনৈতিক নেতাকর্মীদের মধ্যে নানা রকম আলোচনা সমালোচনা শুরু হয়েছে। আর বর্তমানে কমিটি থেকে অবাঞ্চিত ঘোষণা করার কথা বলছেন অনেকে। একই সাথে নতুন কমিটি গঠন করার কথা বলা হয়। তবে এই সকল বিষয় নিয়ে এখনো ওই ধানের শীষ প্রতীকে নির্বাচিত চেয়ারম্যান কোনো কথা বলেননি।