গত কয়েকদিন ধরে এমপি হাজী সেলিমের বিরুদ্ধে বেশ লোছু অভিযোগ উঠে এসেছে। আর এই সকল অভিযোগের কিছু কিছু সত্যতা পাওয়া গেছে। এমনকি তিনি বেশ কিছু জায়গা দখল করেছেন বলে অভিযোগ উঠে এসেছে আর এবার তার দখলকৃত জমি উদ্ধার করা হয়েছে। তবে যতই দিন যাচ্ছে এই রাজনৈতিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে ততই নানা রকম অভিযোগ উঠে আসছে। কিন্তু বর্তমানে অনেকে প্রশ্ন করছেন এই ব্যক্তির বিরুদ্ধে এর আগে কেন পদক্ষেপ গ্রহণ করা হল না।

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁয়ে শিল্পনগরী মেঘনাঘাটে ঢাকা-৭ আসনের সংসদ সদস্য হাজী সেলিমের অবৈধ দখলে থাকা টাইগার সিমেন্ট প্রতিষ্ঠানের অভ্যন্তরে উচ্ছেদ অভিযান চালিয়েছে উপজেলা প্রশাসন।
রবিবার বিকালে সোনারগাঁ উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আল মামুন এ উচ্ছেদ অভিযান চালান। এ সময় উপস্থিত ছিলেন পিরোজপুর ইউনিয়নের ভূমি উপসহকারী কর্মকর্তা আতাউর রহমান ও পুলিশ সদস্যরা।
সময় স্বল্পতার কারণে সব স্থাপনা উচ্ছেদ করা সম্ভব হয়নি। এই জায়গাটি বর্তমানে মদিনা গ্রুপ (টাইগার সিমেন্ট) কর্তৃপক্ষের দখলে আছে। তাদের এটি দখল ছেড়ে দিতে তিনদিনের সময় বেঁধে দিয়ে নোটিস দিয়েছে সোনারগাঁ উপজেলা ভূমি কার্যালয়।
এ সময়ের মধ্যে দখল ছেড়ে না দিলে পুনরায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করবেন বলে জানিয়েছেন আল মামুন।
সহকারী কমিশনার বলেন, মদিনা গ্রুপের দখলে থাকা প্রায় ১৪ বিঘা সরকারি সম্পত্তি চিহ্নিত করেছি আমরা। কিছু অংশ উচ্ছেদ করা হয়েছে। সময় স্বল্পতার কারণে সব উচ্ছেদ সম্ভব হয়নি। মদিনা গ্রুপ কর্তৃপক্ষকে তিনদিনের সময় বেঁধে দিয়ে নোটিস করেছি। এ সময়ের মধ্যে দখল ছেড়ে না দিলে আমরা পুনরায় উচ্ছেদ অভিযান পরিচালনা করব। সূত্র:ঢাকাটাইমস


এদিকে, এই এমপি পরিবারের বিরুদ্ধে নানা রকম অভিযোগ উঠে আসছে তবে তার পুত্রের ঘটনার পর থেকে এই সকল অভিযোগ উঠে আসছে। কিন্তু তিনি কিভাবে এই সকল জমি দখল করেছেন যা নিয়ে অনেকে কথা বলছেন। তবে অনেকে মনে করেন ক্ষমতার জোরে বিভিন্ন সময় এই সকল জমি দখল করেছেন যা বর্তমানে প্রকাশ্যে আসছে।