দেশের বিভিন্ন স্থানে ঘটে যাওয়া ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদ করে সাধারণ মানুষ যখন এর সর্বোচ্চ বিচার চাচ্ছে তখন এমন ঘটনা থেমে নেই। এমনকি অনেক সময় দেশে আইনের কাজে নিয়োজিত ব্যক্তিদের বিরুদ্ধেও এমন ঘটনার অভিযোগ উঠে এসেছে। আর গত কয়েকদিন ধরে অভিযোগ উঠে এসেছে যে এক আইনজীবী তৃতীয় লিঙ্গের ব্যক্তির সাথে জোরপূর্বক অনৈতিক সম্পর্ক করেছেন এরপর সেই ঘটনা নিয়ে বয়াপক সমালোচনা দেখা দেয়।

বরিশালে তৃতীয় লিঙ্গের এক ব্যক্তির সাথে জোরপূর্বক যৌ’’ন সম্পর্ক করার অভিযোগে সামসুল হক নামে এক আইনজীবীকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।
পুলিশ জানায়, শনিবার (১০ অক্টোবর) দিবাগত রাত সাড়ে ১২টার দিকে বরিশাল কোতোয়ালী থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী।

পরে রাত সাড়ে ৩টার দিকে ওই আইনজীবীকে গ্রেফতার করে পুলিশ।

গ্রেফতারকৃত সামসুল হক বরিশাল আইনজীবী সমিতির সিনিয়র সদস্য।
মামলার এজাহারে উল্লেখ করা হয়, জমি কেনা-বেচার সূত্র ধরে ৭ থেকে ৮ মাস আগে দু’জনের পরিচয় হয়। ঘনিষ্ঠতার এক পর্যায়ে তৃতীয় লিঙ্গের ওই ব্যক্তির সাথে জোরপূর্বক যৌনসম্পর্ক করেন আইনজীবী সামসুল হক।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এস আই ফজলুল হক জানান, ভুক্তভোগীকে শারীরিক পরীক্ষার জন্য শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।
অন্যদিকে, আইনজীবী সামসুল হককে আদালতে সোপর্দ করা হলে অতিরিক্ত চীফ মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট বিচারক মারুফ আহমেদ অভিযুক্ত আইনজীবীকে জেল হাজতে প্রেরণের নির্দেশ দেন।


এদিকে, দেশে যখন এমন ন্যাক্কারজনক ঘটনার প্রতিবাদ করে সাধারণ মানুষ রাজপথে নামছেন তখনো এমন ঘটনা থেমে নেই। আর এবার এই আইনজীবীর বিরুদ্ধে ন্যাক্কারজনক ঘটনার অভিযোগ উঠে এসেছে যা নিয়ে বর্তমানে ব্যাপক সমালোচনা দেখা দিয়েছে এবং তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে।