বর্তমানে দেশে প্রায় সময় দেখা যায় ডাক্তার রোগীর সাথে ভালো ব্যবহার করে না। এমনকি অনেক ডাক্তার রয়েছে যারা শুধু টাকার জন্য চেম্বার খুলে বসেন এবং দেশের সাধারণ মানুষের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নেন। কিন্তু দেশে এখনও অনেক মহাত ডাক্তার রয়েছেন যারা দেশের সাধারণ মানুষের সেবার জন্য সব সময় নিয়োজিত থাকেন। এমনই একজন ডাক্তার হচ্ছেন আবু সালেহীন খান। এই ডাক্তার সবার কাছে গরিবের ডাক্তার নামে পরিচিত।

হাসপাতালে দায়িত্বরত অবস্থায় হঠাৎ করে চেয়ার থেকে পড়ে সিলেটের মাউন্ট এডোরা হাসপাতালের আইসিইউতে (নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্র) চিকিৎসাধীন ছাতকে ’গরিবের ডাক্তার’ আবু সালেহীন খান।

গত ১৯ জানুয়ারি কর্মস্থলে হঠাৎ করে চেয়ার থেকে পড়ে যান তিনি। ডা. সালেহীন খান ছাতক উপজেলায় ’গরিবের ডাক্তার’ হিসেবে পরিচিত। তিনি কৈতক হাসপাতালের মেডিকেল অফিসার।

জানা গেছে, গত ১৯ জানুয়ারি কর্মস্থলে হঠাৎ চেয়ার থেকে পড়ে যান ডা. সালেহীন খান। পরে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সিলেট নেয়া হয়েছে। তাকে সিলেটের মাউন্ট এডোরা হাসপাতালে ভতি করা হলে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হয়।

অবশেষে ডা. সালেহীন খানকে আইসিইউতে ভতি করা হয়।

এ ব্যাপারে জাউয়াবাজার ইউনিয়নের ইউপি সদস্য আবদুর রহিম জানান, ডাক্তার আবু সালেহীন খান ’গরিবের ডাক্তার’। তিনি গরিব অসহায় মানুষের পাশে থেকে চিকিৎসাসেবার হাত বাড়িয়ে দেন। মানুষ মানুষের জন্য, জীবন জীবনের জন্য– এমন কথা এখন কল্পনা করা যায় না।
হাসপাতালের ভারপ্রাপ্ত ইনচার্জ ডা. সাইদুর রহমান জানান, ডা. আবু সালেহীন খান সিলেটের মাউন্ট এডোরা হাসপাতালের আইসিইউতে চিকিৎসাধীন। দেশবাসীর কাছে সালেহীন খানের সুস্থতার জন্য দোয়া চেয়েছেন তিনি।

উল্লেখ্য, ডা. আবু সালেহীন খান ছাতক উপজেলায় মেডিকেল অফিসার হওয়ার পর সেখানকার অনেক অসহায় মানুষ তার কাছ থেকে অনেক ভালো সেবা পেয়েছে। এমনকি তিনি গরিব মানুষগুলোর কাছে কখনও টাকা নিতেন না। এ কারণে তিনি সেখানে গরিবের ডাক্তার হিসেবে পরিচিতি পান। তিনি সেখানে সাধারন মানুষের চিকিৎসাসেবা দিয়ে মন জয় করেছেন। তিনি সব সময় সময়মতো হাসপাতালে যেতেন এবং সব সময় চিকিৎসা নিয়ে ব্যস্ত সময় পার করতেন।